জেগে উঠো হে বাঙ্গালী

-সাকি বিল্লাহ্

 

হে নির্বাসিত মন, অর্বাচিন বাঙ্গালী,

জেগে উঠো আজ ঘোর অমানিষায় জ্বেলে দ্বীপালী ।

হেয় করো সকল কুণ্ঠা আর জরা যত,

শক্তিতে হও আগুয়ান হটিয়ে হিংস্র পশু শত শত ।

 

কে বলে তুমি ধারক কোন বিশ্বাসের,

বলো চীরদিন ধরনীর বুকে বীরসন্তান এই দেশের ।

হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ অথবা খ্রিস্টান,

সকলে এক বাংলা বীরের জাত সন্তান ।

ধ্বংস করে যারা এই সৌর্হাদ্রপ্রিয় বাঙ্গালী জাত,

পিছু না হটে দাও ফিরিয়ে তারে সকল প্রতিঘাত ।

 

শতশত নদীর কলকল তাল,

ডাকে দেখো দূর সমুদ্রের ঢেউ উত্তাল ।

শান্ত নদী মোহনায় হয় মাতন্ড প্রায়,

শেষ হওয়ার আগে জানিয়ে শেষ অভিপ্রায় ।

এই বঙ্গদেশের সকল সম্ভার,

রোষানলে হয়েছে পিশাচ আর শকুনের ভাগার ।

বিবেকের দংসনে তাড়ায় মন সারাক্ষণ,

তাই, ক্ষয় হোক তবুও করে যাব দেশের কল্যাণ ।

 

সবুজের মাঝে লাল সূর্যের এই পতাকা,

শতকোটি মানুষের দিগ্বীজয়ী আলোক-বর্তীকা ।

তাই জেগে উঠো কালবৈশাখীর মত,

ছিন্নবিদীর্ণ করে দাও সকল পিশাচের অন্তর যত ।

ছিনিয়ে আনো এই লাল সবুজের নিশানা,

মুক্ত করে দাও সকল শিকলে বাঁধা বিহঙ্গনা ।

বীর বাঙ্গালীর সকল বীরত্বকথন,

জাগিয়ে ধরনী করো  চীর অমলিন । ।

 

মন্তব্য করুন..

২ মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.