রুবাই ২৪, ২৫, ২৬, ২৭

রুবাই ২৪, ২৫, ২৬, ২৭
—————— রমিত আজাদ

২৪।
কৃষ্ণচূড়ার ভাব হয়েছে ময়না পাখীর সাথে,
তাইনা দেখে বুলবুলিটা মিটির মিটির হাসে।
মনে মনে ভাবে বুলি সূর্যোদয়ের কালে,
‘আমিও তো বসেছিলাম কৃষ্ণচূড়ার ডালে!’

২৫।
মাঝে মাঝে হতে চায় এ মন রিজনেবল মিসির আলী,
সেই মন আবার মন ভুলিয়ে হিমুর কাছে যায় চলি।
যুক্তিবিহীন হিমুর কাছে রহস্য যে কি এক আছে!
যুক্তিযুক্ত মিসির আলী সমান ভাবেই টানছে কাছে!

২৬।
দুষ্ট চক্রে পড়লে নগর, উঠানো যে বিষম দায়,
পড়লে দস্যু গুপ্তপথে নগরবাসীর পরাণ যায়।
দস্যু আসে বুক চিতিয়ে চুনকালি দেয়, কি সাহস!
নগরপালের মৌনতা কি দস্যু দলের যোগসাজস?

২৭।
শহরতলির কোনার দিকে নিষিদ্ধ এক মহল্লা,
রাত বিরেতে নূপুর বাজে, নৃত্যগীতের কি হল্লা!
নিষেধ তবু সক্কলে যায়, যাওয়ার বেলায় নাই বাধা!
আসতে মানা ওদের এদিক, সমাজ তাদের জায়গা না।

———————————————–
তারিখ: ২৯শে অক্টোবর, ২০১৮
সময়: রাত ৩ টা ০১ মিনিট

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.