সোনাবউ (শুধুমাত্র বিবাহিতদের জন্য)

বিয়ের ৫ বছর পুর্তিতে ভাবছিলম বউ এর সাথে বসে আমাদের বিগত ৫ বছরের দাম্পত্য জীবন রিভিউ করবো। কিন্তু এমন দিনে বউ এর প্রচন্ড মাথা ব্যাথার কারনে একটা মাথা ব্যাথার ট্যাবলেট আর দুইটা ঘুমের ট্যাবলেট খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ছে/:)। এমতাবস্থায় বউয়ের জন্য আনা গোপন গিফট্ নিয়ে মন খারাপ করে বসে আছি। ভাবছি ব্লগারদের সাথেই শেয়ার করি আমার সুখ দুঃখ…

 

বিয়ের পর বউ আমার মোবাইলে কল করলে আমার মোবাইলে ভেসে উঠতো সোনাবউ আর আমি কল রিসিভ করেই বলতাম হ্যালো সোনাবউ কি হয়েছ? আমার সোনাবউ তখন বলতো জানু তুমি কখন বাসায় আসবা:P?

 

তার কিছুদিন পর সোনাবউকে শুধু বউ বলে ডাকতাম। মাঝে মাঝে তো বড় করেই বলতাম– বউ কই গ্যালা খাইতে দাও ক্ষিধা লাগছেতো। তখন সে বলতো এইতো আসছি জান একটু অপেক্ষা করো গোসোল টা করেই তোমাকে ক্ষেতে দিবো। বড় ভাবিরা তো হিংসায় মরতো আমার আদরের ডাক শুনে।

 

৩ বছর পর আমাদের একটি ছেলে সন্তান হলো আর সেই সাথে পাল্টে গেলো আমাদের ডাকা-ডাকির ধরন। শুরু হলো ও বাবুর আম্মু কই গ্যালা এদিকে একটু আসো তো । বউ আমার বলতো বাবুর আব্বু একটু অপেক্ষা করো আসতেছি।

 

ভাবছি ভবিষ্যতে কি ওগো শুনছো? হ্যাগো কই গেলা শুরু করবো কিনা।

 

আর এভাবে চলতে থাকলে বয়স ৪০ হলেই তো বলতে ঐ বুড়ি কই গ্যালা? হয়ত তখন বউ বলবে বুড়ার কি ভীমরতিতে পাইলো নাকি যখন তখন খালি জ্বালায় ক্যান ;)।

 

বিয়ের পরে আমার শালীরা আমার বউকে বলতো আপু দুলাভাই না একদম সালমান শাহ এর মত (কপালের দুইপাশে চুল কম ছিলো তাই)।

 

এখন গেলে সবাই বলে আপু দুলাভাইকে না পুরা দিলদারের মত দেখায় (সারা মাথার শুধু পিছনে কয়টা চুল আছে)

 

ভাবছি কয়দিন পর বলবে দুলাভাইকে তো পুরা আবুল হায়াতের মত লাগে :)।

 

আমার সোনা বউ একদিন বল্লো তার বান্ধবী নীলা’র ম্যারেজ ডে তে দাওয়াত দিছে।nএখনও সাজুগুজু শেষ হয়নাX(। বার বার বলি হলো তোমার? আমর সোনা বউ বলে দেখতো এই শাড়িটা পরবো নাকি এইটা। আমি বলি তুমি যেটা পরবা ওটাতে ই তোমাকে সুন্দর লাগবে। বউ তখন একটু বাকা শুরু বলে তুমি কি সুন্দর চেনো? আমি মনে মনে বলি সুন্দর চিনলে কি তোমাকে বিয়ে করতাম? তাহলে তোমার ছোট বোন কে বিয়ে করতাম (আমার বউ এর থেকে শালি অনেক সুন্দরী:P। অবশ্যই এই কথাটা নাকি সকল পুরুষেই বলে) । অনুষ্ঠানে যাবার জন্য আমার সাজুগুজু শেষ হয়ে গেছে। খয়েরী কালারের পায়জামা পাঞ্জাবী আর একজোড়া নাগরা স্যান্ডেল, চোখে সোনালি কালারের চশমা। বউ আমার সাজ দেখে বলে চশমা পরছো কেন? তুমি যে কানা সেটা কি অনুষ্ঠানের মানুষদের ও জানাতে হবে। চশমা ছাড়া কম্পিউটারে টাইপ করতে পারোনা তাই বলে কি চলতে ও পারোনা? আর চশমা পরলে তোমাকে শিয়াল পন্ডিতের মত দেখায়/:)। বাধ্য হয়ে চশমা ছাড়া রওনা হলাম। অনুষ্ঠানে দেখি নীলার হ্যাজবেন্ড একটি ঘিয়ে কালারের পাঞ্জাবী’র সাথে সোনালী কালারের একটি চশমা পরেছে সত্যিই খুব সুন্দর লাগছে। আমার সোনাবউ আমাকে ডেকে বল্লো দেখছো নীলার হ্যাজবেন্ড কে শাহরুখ খানের মতো লাগতেছে। কাভি খুশি কাভি গাম ছবিতে শাহরুখ খান কে যেরকম লাগছিলো সেরকম নীলার হ্যাজবেন্ড কে নাকি লাগতেছে। চিন্তা করলাম আমি চশমা পরলে আমাকে শিয়াল পন্ডিতের মতো লাগে আর অন্য কেউ পরলে…। আমিও কম না আমার সোনাবউকে বল্লাম নীলাকেও ঐশ্বর্যরাইয়ের মতই লাগতেছে ;)। অমনি চটে গিয়ে আমার সোনা বউ আমাকে বল্লো নিজের বউকে তো কখনও ঐশ্বর্য রাইয়ের মত ভাবতে পারলানা অন্য মেয়েদের দেখলেই তোমার কাছে ঐশ্বর্য রাই আর এ্যাঞ্জেলিনা জলি মনে হয়। এ প্রসংগে একটা গল্প মনে পড়ে গেলো….

 

একটি কলেজের ক্যাম্পাসে কতোগুলো মেয়ে আড্ডা মারতেছে তারা কিছু অশ্লীল বিষয় নিয়ে ই কথা বলতেছিলো। হটাৎ করে একটা মেয়ে তার বান্ধবীদের জিজ্ঞাসা করলো— আচ্ছা আমরা যেমন এই সব অশ্লীল বিষয় নিয়ে কথা বলি, ছেলেরা যখন একসাথে বসে আড্ডা মারে তারাও কি এই রকম খারাপ বিষয় নিয়ে কথা বলে? তখন আর একটি মেয়ে বল্লো বলে না মানে অবশ্যই বলে। প্রশ্নকারী মেয়েটা বল্ল ছিঃ! ছিঃ! ছেলেরা এতো খারাপ। চিন্তা করেন মেয়েরা করলে দোষ নাই- ছেলেরা করলে দোষ।

 

রাত দুইটা বাজে আমার সোনা বউএর ঘুম ভেঙ্গেছে। ঘুম ভাঙ্গার পর দেখে আমি ল্যাপটপ নিয়ে বসে আছি। ঘুম জড়ানো কন্ঠে আমার সোনা বউ আমাকে বল্লো-তোমার যদি একটা ল্যাপটপের সাথে বিয়ে হতো তাও তোমার রাতটা ভালোই কাটতো। আমাকে আর দরকার হতো না। আমি চিন্তা করলাম সোনা বউ তো আমার উপর ক্ষেপেছে। রাত ২টার সময় আমার ১২টা বাজানো যাবেনা। ল্যাপটপ টা শাটডাউন না করেই শাটার টা চেপে দিয়ে বল্লাম তুমিই তো আমার ল্যাপটপ শোনাবউ ………………. তারপর কি হলো আর বলবো না কারন আগেই বলেছি শুধুমাত্র বিবাহিত দের জন্য সুতরাং আপনারা সবাই আমার থেকে অভিজ্ঞ.।

 

 

সর্বোপরি আমার সোনাবউকে নিয়ে ভালো আছি মাঝে ঝগড়া হয়। প্রচন্ড ঝড়বৃষ্টির পর যখন সূর্য ওঠে নতুন আলো নিয়ে তেমনি ঝগড়া শেষে নতুন প্রেম শুরু হয় আমার সোনাবউ আর আমার মাঝে। সবার কাছে দোয়া চাই যেন বাকিটা জীবনটা ও এভাবে কাটাতে পারি।

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.