Буря любовных писем (প্রেমপত্রের ঝড়)

Буря любовных писем
—————————– Рамит Азад

Вдруг что пришла сегодня, Калбошехи шторм;
Мечты словно летают за головой.
Письма любви летят один за другим,
Они говорят: «Ты забыл? Посмотри и увидишь!»

вот первое письмо там, первое пятно любви!
Первые ласки от прикосновения дрожащей руки!
Когда В первый день я ее увидел, заиграла первая флейта;
улыбнулась и убежала, жемчужнная улыбка!

Я написал это письмо немного позже, тогда я уже знаю ее
После школы чтобы увидеть ее я рассчитал звонок.
Стоя на дороги, я Я ждал ее,
в школьной форме она ходила на этой дороге।

Синяя письмо гораздо позже, пару лет спустя;
Пишу я, пишет она, идет соревнование!
Иногда днем ​​я вижу ее на берегу реки,
Я мазаю ветер, идущий из ее рук

И это письмо – ее безумие, от обиды!
Когда происходит обидчивость, все время напрасно.
Дождь в ее глазах, мокрые веки.
Мокрое письмо с ним, мокрая книга для чтения.

Тот Письмо написанное в линованной бумаге,
В то время время от времени мы встречаемся.
В семейных посиделках или по праздникам,
Когда появляется возможность, мы общались много.

Мне тогда было девятнадцать, ее было шестнадцать,
Мы говорил на всех языках . На тихом языке, и на на громком языке
письмо за письмом – эпичные поэзия любви,
Я прорезаю сердце, кто будет думать за кого?

Когда я написал красную письмо, я далеко улетаю,
Вызов из-за границы, поеду учиться там
Письмо ей так и не мо доставит, поэтому
Я дал в руке моего друга: «Доставь, брат».

После этого много лет никто не кому ни писал письма,
Я думал о ней в своей голове, Я видел ее во сне
Через несколько лет я вдруг вижу что то!
Ее письмо из-за границы।

Он тоже уехал в другую страну, там удача будет строить,
Как и я, она тоже принесла жертву изгнания!
Страна такая есть, какая она была, просто нас там нет;
Купили билет в один конец, живем по своим.

В настоящее время никто не пишет письма
Теперь все пишут по электронной почте,
А Я как старик, даже современное время я пишу письма по старому,

пишу ей письма во виде стихов!

Дата составления: 22 апреля 2021 г.
Время написания: 12:20

প্রেমপত্রের ঝড়
—————————- রমিত আজাদ

হঠাৎ করে আজ যে এলো, কালবোশেখী ঝড়;
স্বপ্নগুলো কেমন যেন উড়ছে মাথার পর।
প্রেমের চিঠি উড়ছে যেন একের পরে এক,
বলছে তারা, “ভুলেই গেলি? দেখরে চেয়ে দেখ!”

ঐ তো সেথায় প্রথম চিঠি, প্রথম প্রেমের দাগ!
কাঁপা কাঁপা হাতের ছোঁয়ায় প্রথম অনুরাগ!
প্রথম যেদিন দেখি তারে, বাজলো প্রথম বাঁশি;
মুচকি হেসেই পালিয়ে গেলো, মুক্তো ঝরা হাসি!

ঐ চিঠিটা একটু পরের তখন তারে চিনি,
ছুটির পরে তার আশাতেই ঘন্টাধ্বনি গুনি।
পথের ধারে দাঁড়িয়ে থাকি, দেখবো তাকে বলে;
বিদ্যালয়ের পোশাক গায়ে ঐ পথে সে চলে।

নীল চিঠিটা আরো পরের, বছর দুয়েক গেলে;
আমি লিখি, সেও লেখে, পাল্লা দিয়ে চলে!
মাঝে মাঝে বিকেল বেলায় নদীর তীরে দেখি,
দূর থেকে তার হাত নাড়ানোর বাতাস গায়ে মাখি।

আর ঐ চিঠিটা পাগলামী তার, রাগ করেছে মন!
মান-অভিমান চলছে তখন, বৃথাই সারাক্ষণ।
বৃষ্টিসম ঝরছে আঁখি, ভিজছে চোখের পাতা।
তারই সাথে ভিজলো চিঠি, ভিজলো পড়ার খাতা।

রুলটানা ঐ কাগজটাতে যেই চিঠিটা লেখা,
সেই বেলাতে মাঝে-সাঝে হচ্ছে মোদের দেখা।
পারিবারিক মিলন কিবা ঈদ-মিলাদে দাওয়াত পেলে।
সুযোগ হলেই কাছাকাছি, বলছি কথা মনটা খুলে।

আমার তখন বয়স উনিশ, তার ফুরলো ষোল,
সরব-নীরব সব ভাষাতেই মনের কথা হলো।
চিঠির পরে চলছে চিঠি প্রেমের মহাকাব্য,
হৃদয় জুড়ে খোদাই করি, কার কথা কে ভাববো?

লাল চিঠিটা যখন লিখি তখন যাবো অনেক দূর,
বিদেশ থেকে ডাক এসেছে, পড়তে যাবো অচিনপূর!
ঐ চিঠিটা ওর হাতে আর হয়নি দেয়া তাই,
বন্ধু হাতেই গুঁজে দিলাম, “পৌছে দিও ভাই।”

এরপর তো অনেক বছর কেউ লিখিনি চিঠি,
মনে মনেই তাকে ভাবি, মনের পটেই দেখি।
বছর কয়েক ফুরিয়ে গেলে হঠাৎ দেখি একি!
সাত সাগরের ওপার থেকে আসলো তাহার লিপি!

সেও গিয়েছে আরেক দেশে, গড়বে সেথায় ভাগ্য,
আমার মত সেও নিয়েছে নির্বাসনের যজ্ঞ!
দেশ তো আছে যেমন ছিলো, আমরা শুধু দূরে দূরে;
একমুখী এক টিকিট কেটে, যে যার মত আছিই সরে।

চিঠি লেখার চল তো কবেই উঠে গেছে জগৎ থেকে,
এখন সবাই ইমেইল করে, আকাশ জুড়ে জালক পেতে।
আমিই শুধু রইনু পড়ে সেকেলে এক বুড়োর মত,

আজও তারে লিখছি চিঠি কাব্য কথার ছলে যত!

রচনাতারিখ: ২২শে এপ্রিল, ২০২১ সাল
রচনাসময়: আত ১২টা ২০ মিনিট

The Storm of Love Letters
————— Ramit Azad

(একজন রুশ অধ্যাপিকা বাংলা কবিতাটা পড়ে মন্তব্য করেছিলেন, “খুবই হার্ট টাচিং কবিতা।”
আমি বললাম, “আপনি কি বাংলা বোঝেন?”
তিনি বললেন, “না। আমি ট্রান্সলেটর ইউজ করে পড়েছি।”
আমি দেখলাম যে, ট্রান্সলেটর অত ভালো অনুবাদ করতে পারে না।
তাই এখন আমি কাঁচা হাতে নিজেই অনুবাদ করছি।
অনুবাদের ত্রুটি থাকলে বলবেন। সংশোধন করে দেব)

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.