কুহকী ক্ষুদেবার্তার ইঙ্গিত

কুহকী ক্ষুদেবার্তার ইঙ্গিত
—————— রমিত আজাদ

“আমার খুব জানতে ইচ্ছা করছে,
তুমি কেমন আছো,
কেমন যাচ্ছে তোমার দিনকাল।”
বিচ্ছেদের বছর চারেক পরে লেখা
তোমার এই টেলিগ্রামটির কথা
আজ বছর ঊনিশ পরে
বারবার মনে পড়ছে!

বারবার জানতে ইচ্ছা হচ্ছে,
এত কিছুর পরেও
কেন তুমি পুনর্বার লিখেছিলে
আবেগঘন ঐ কয়েকটি লাইন?
আমার অনুভূতিও বা কেমন হয়েছিলো
ঐ কয়েকটি লাইন পড়ে?
টেলিগ্রামের ভাষা এযুগের ক্ষুদেবার্তা সম।
তার ভাব সম্প্রসারণ তো কত আঙ্গিকেই হতে পারে!
কি ইঙ্গিত ছিলো, ঐ কয়েকটি লাইনে?
আমি কি সেই ইঙ্গিত বুঝতে পেরেছিলাম?
আমার প্রতিউত্তরই বা কেমন হয়েছিলো?

কঠিন ইস্পাত আলমারিতে তালাবদ্ধ করে রাখা
মোলায়েম মোড়কের রোজনামচাটি খুললে
উন্মোচিত হবে সাদাকালোয় গ্রন্থিত
প্রতিকী ঐকতান।
হয়তো মনে করতে পারবো,
বছর ঊনিশ আগের আমার প্রতিক্রিয়া!
যে কুহক আজ বিরহের নিরংশু খন্দে
ঘুমন্ত অথবা নিলীন!

তারপরেও তালা খুলতে ইচ্ছা করেনা
ইস্পাত আলমারির,
খুলে পড়তে ইচ্ছা করে না
মখমলি রোজনামচাটি!
সচল হতে চাওয়া চকিত হাত দুটিকে
কে যেন জমিয়ে নিশ্চল করে দেয়!

থাক আলমারীর সমাধিতে
ঘুমিয়ে থাক রোজনামচার শবটি!
শবাধার খুলতে নেই,
নির্জীবকে জাগাতে নেই।
প্রকৃতি অনিয়ম সয়না,
নিয়ম ভাঙার প্রতিশোধ নিতে
পৃথিবী প্রকম্পিত হতে পারে!!!

————————————————–
তারিখ: ৩রা মার্চ, ২০১৯
সময়: রাত ১২টা ৫৫ মিনিট

The Hidden Message of a Telegram
————————– Ramit Azad

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.