পিঙল নয়নে ঘূর্ণিঝড়

পিঙল নয়নে ঘূর্ণিঝড়
——————————- রমিত আজাদ

১।
আমার জন্যে একটা কবিতা লেখেন না!
-লিখলাম!
-লিখেছেন?

  • হ্যাঁ। পড়ে দেখো।
    -পড়বো?
  • অবশ্যই পড়বে। তোমাকে নিয়েই তো লেখা!
    -আচ্ছা থাক।
  • পড়বে না?
  • না।

২।
আমার জন্যে একটা কবিতা লেখেন না!
-লিখেছি!
-লিখেছেন?

  • হ্যাঁ। পড়ে দেখো।
    -পড়লাম।
  • কেমন লাগলো?
  • ভালো হয়তো।
  • মানে?
  • আমি কঠিন ভাষা কম বুঝি।
  • কবিতাটা বোঝ নাই?
  • না। ভালো হয়েছে নিশ্চয়ই। হাউএভার, থ্যাংক ইউ ফর দ্যা পোয়েম!

৩।

  • “আমার জন্যে একটা কবিতা লেখেন না!”
    মুখ ফুটে বলে নাই সে।
    তবে তার পিঙ্গল নয়নে সেই আঁকুতিই ছিলো!
    বারবার আসে যায়। কিন্তু মনের কথাটা কখনোই বলে না!

কবি একসময় বুঝতে পারে তার মনের আঁকুতি।
অবশেষে তাকে নিয়েই লেখা হলো, কবির অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবিতা!

“চাঁদের মতো রূপ যে তোমার, ফেনিল সাগর পিঙল আঁখি!
আমার পথ যে কাঁটায় ভরা, কেমনে তোমায় সেথায় ডাকি?
নীরব তোমার আঁখির ভাষা, শিরীন তুফান ঘূর্ণিঝড়ে!
কাব্য আমার ঠাঁই পাবে না, অতল আঁখির সরোবরে।”

—————————– রমিত আজাদ
১৯শে মে, ২০২০ সাল

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.