Categories
অনলাইন প্রকাশনা পুস্তকসমূহ

বইমেলায় পাওয়া যাচ্ছে সহিদুল ইসলামের“আবীর”

 

“অমর একুশে বইমেলা-২০১৪”-এ মুন্নী প্রকাশনের ৪২৪এবং ৪২৫-নং ষ্টলে পাওয়া যাচ্ছে লেখক এবং প্রাবন্ধিক মোহাম্মদ সহিদুল ইসলামের বই “আবীর”।

“আবীর”বইটিতে লেখকের ভূমিকা বানীতে যা বলা হয়েছেঃ

আবীর মানে পুষ্পিকার শক্তিশালী সৌরভ, যার সুগন্ধে মানুষ আনন্দে আবিষ্ট হয় এবং কিছুক্ষণের জন্য হলেও নির্মলতায় মন ভরে যায় ও পঙ্কিলতা থেকে দূরে থাকে। আবীর মানে সাহসিক, আবীর মানে নির্ভীক যার বীরোচিত প্রতিবাদ এবং প্রতিরোধের কাছে দুষ্কৃতিকারীরা মাথা নত করতে বাধ্য হয়। আবীর গ্রন্থে আমি করেছি অন্যায়ের শক্তিশালী প্রতিবাদ, শান্তির ধর্ম ইসলামকে নিয়ে করেছি সংক্ষিপ্তাকারে ছন্দ সৃজন।
সর্ব কালের, সর্ব যুগের সেরা যিনি, যার কাজের সীমা এবং স্থায়িত্ব বিবেচনা করলে শুধু মক্কার নবী হিসেবে নয় পৃথিবীর ইতিহাসে যিনি দীপ্তিময়ভাবে জ্বলজ্বল করছেন। যার খ্যাতির কোন মাপকাঠি নেই, যিনি দার্শনিক, বাগ্মী, বার্তাবাহক, আইনপ্রণেতা, নতুন ধারণার উদ্ভাবনকারী,বাস্তব বিশ্বাসের পুনরুদ্ধারকারী, জাগতিক ও আধ্যাত্মিক সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা, যার শ্রেষ্ঠত্বের কোন তুলনা নেই। ঐতিহাসিক ফিলিপ কে. হিট্টি (History of the Arabs, page 3) বলেছেন, পৃথিবীর সব ধর্মের মধ্যে একমাত্র ইসলামই পেরেছিল জাত ও বর্ণের ভেদাভেদ মুছে ফেলতে।

অথচ আমাদের সমাজে আজ মৌলবাদীদের (ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি) উত্থানে দেশটির ধর্মনিরপেক্ষতার ঐতিহ্য ধ্বংসের পথে। সমাজের এই মৌলবাদী গোষ্ঠী ধর্মনিরপেক্ষতার ব্যাখ্যা দিচ্ছে, ধর্মনিরপেক্ষতা নাকি ধর্মহীনতা। তারা আমাদের দেশের সহজ-সরল ধর্মপ্রাণ মানুষদের বিভ্রান্ত করছে। তারা এটা বুঝতে চায়না যে, ধর্ম যার যার, রাষ্ট্র সবার। আমি কেন আমার ধর্ম আরেক জনের উপর চাপিয়ে দিব? আমাদের বীর সেনানীরা তো (হিন্দু, বৌদ্ধও, খৃস্টান ও অন্যান্য) নিদৃস্ট কোন ধর্মের জন্য যুদ্ধ করেননি। তাই বলে যে ধর্মকে বাদ দিয়ে তারা যুদ্ধ করেছে তা কিন্তু নয়। তাহলে কেন ধর্ম নিয়ে কেন এত বাড়াবাড়ি? এ বিজয়ের অংশীদার তো ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের। আমরা আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিকে এমন দেখতে চাই, যেখানে থাকবে সুষম-ন্যায্য সমাজ, যেখানে থাকবেনা অন্যায়-অবিচার, যেখানে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে আমরা সকলে শান্তিতে বসবাস করবো। তাই যিনি বিশ্ব মানবতার মুক্তির ধারক ও বাহক, তাঁর দর্শন নিয়ে কবিতা এই বইতে উপস্থাপন করা হয়েছে।
যাদের ওছিলায় আমারা জগতে এসেছি, সৃষ্টিজগতে মানুষের প্রতি সর্বাধিক অনুগ্রহ প্রদর্শনকারী হচ্ছেন পিতামাতা, এই পিতামাতা কে নিয়ে লেখা কবিতা স্থান পেয়েছে এই বইতে। যে ভালবাসা সৃষ্টি না হলে পৃথিবী সৃষ্টি হতোনা, সেই প্রেমপ্রীতি-ভালবাসা এবং বিরহ বেদনার স্মৃতি নিয়ে লেখা, রাজনীতি ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে বেশ কিছু কবিতা আমার বইতে অধ্যেতা সমীপে নিবেদন করেছি।

একজন মানুষের প্রাত্যহিক জীবনে হৃদয়ঙ্গম করার মত একটি বইয়ের নাম আবীর। আমার শ্রম তখনি সার্থক হবে, যখন কোন পাঠক আমার বই পড়ে অণু পরিমাণ হলেও উপকৃত হবেন।

বিনয়াবত
লেখক,
মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম
Sahidul_77@yahoo.com

বিভাগ:

 

মন্তব্য করুন..

By মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম

I AM MOHAMMAD SAHIDUL ISLAM (M.COM._MGT._N.U._BD),
1998-2008_ WORKING IN BANGLADESH IN NGO
AS AN ACCOUNTS OFFICER

2009-STILL NOW STAY IN SINGAPORE, WORKING IN
INTERNATIONAL COMPANY
AS A COMPUTER OPERATOR

আমি মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম (এম,কম_ব্যবস্থাপনা-ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি_বাংলাদেশ),
১৯৯৮ হতে ২০০৮ পর্যন্ত বাংলাদেশের বিভিন্ন এন,জি,ও তে কাজ করেছি

২০০৯ হতে অদ্যাবধি কম্পিউটার অপারেটর হিসেবে সিঙ্গাপুরের
একটি আন্তর্জাতিক কোম্পানিতে কাজ করছি।

৪ replies on “বইমেলায় পাওয়া যাচ্ছে সহিদুল ইসলামের“আবীর””

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.