রুবাই ১১, ১২, ১৩, ১৪, ১৫, ১৬, ১৭, ১৮, ১৯

রুবাই ১১, ১২, ১৩, ১৪, ১৫,
১৬, ১৭, ১৮, ১৯

————– রমিত আজাদ

১১।
জীবন থেকে একটু করে
নেয়া কিছু দৃশ্যায়ন,
জীবন নামক নাটকখানির,
রঙ মাখানো কাব্যায়ন!

১২।
দুর্ভাবনায় রাত্রী জেগে
যার সাধনায় মত্ত,
সে রয়েছে পরের ঘরে,
নও কামনায় সত্য।

১৩।
কাশ হয়ে যাস কোথায় ভেসে
মেঘ হলি না কেন?
মেঘ হলে তোর কসম লাগে,
ঝড় হবি না যেন।

১৪।
ফুলমেলা তোর কৃষ্ণচূড়া,
ঝলমলে তোর কেশগুলা।
কালবেলা তোর দৃষ্টিজোড়া,
রঙধনু তোর টোলগুলা।

১৫।
যখন তুমি বুড়ো হলে
থুত্থুরে এক মনভোলা,
পুঁথির পাতা উল্টে ফেলে,
বললে সবই দিলখোলা!

১৬।
বাসর ঘরের আসর রাখি,
মাতাল গেলো বেশ্যালয়।
পঁচাশ বছর কাল ফুরালে,
জানলো সবই বিশ্বলয়।

১৭।
সোহাগ ভরা বিকেলগুলো
আসবে আবার অন্দরে।
পাল উড়িয়ে জাহাজগুলো,
ভীড়বে নতুন বন্দরে।

১৮।
নির্মলতায় বিষন্নতা
আবেগ হয়ে ভাসবে রে
হিসেব করে হয় না তো প্রেম,
ঝপাত করে আসবে রে।

১৯।
বউয়ের কাছে খাইলো ধরা,
প্রিয়াঙ্কারে ডাক পাড়ি।
মনের কথা বইলা দিলো,
ভাঙলো হাটে দশ হাড়ি!!!

—- রমিত আজাদ
——————————————–

তারিখ: ৭ই অক্টোবর, ২০১৮
সময়: রাত ১০টা ৩০ মিনিট

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.