রুবাই ১৮৬, ১৮৭, ১৮৮, ১৮৯, ১৯০

রুবাই ১৮৬, ১৮৭, ১৮৮, ১৮৯, ১৯০
———————————- রমিত আজাদ

১৮৬।
দেখতে গেলে শুনতে হবে, বলতে হবে কিছু!
জানতে গেলে বুঝতে হবে, ছুটবে কিছুর পিছু!
সাগর ঢেউয়ে নদীই দোলে, ছোটাই যে তার পথচলা!
পিছু ছুটেই জীবন ভোলা, কান্না হাসির দোল দোলা!

১৮৭।
বলার মত বলো না তাই, শোনার মত শুনি না,
জানার মত জানাওনা না তাই, বোঝার মত বুঝি না।
তাও তো আমি তোমার কথা তরূর মতই শুনে যাই,
না বুঝলেও বুঝতে যে চাই, মনটা তোমার দামী তাই!

১৮৮।
সিনেমাতে গিয়ে তবু সিনেমাটা দেখি নাই,
তুমি ছিলে পাশে তাই, তোমাকেই দেখে যাই!
সিনেমার নায়িকাতে একদম মন নাই,
নায়িকাতো পাশে মোর, সে রূপেই মজে যাই!

১৮৯।
সাঁজিয়াছে রণবেশে বীর চলে যুদ্ধে,
বাঁধিয়াছে বন্ধনী ঘোরতরে ক্রুদ্ধে!
ধ্বজাধারী যোদ্ধা পিঠে তুরঙ্গম ছোটে,
উদ্ভাসিত শমশেরে রক্তক্ষুধা ফোটে!

১৯০।
শত্রুসেনা প্রকম্পিত বিরোধী শিবিরে,
রণভেরী বাজিয়াছে মাতার কুটিরে।
মাতৃভূমি রক্ষাকল্পে সিপাহী প্রতিজ্ঞ,
বীরধাত্রী রত্নগর্ভা সমরে অভিজ্ঞ!

—————————————
রচনাতারিখ: ২১শে নভেম্বর, ২০১৯ সাল
সময়: রাত ১ টা ৩১ মিনিট

Rubai 186,187, 188, 189, 190
——————– Ramit Azad

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.