রুবাই ৩১৬, ৩১৭, ৩১৮, ৩১৯, ৩২০

রুবাই ৩১৬, ৩১৭, ৩১৮, ৩১৯, ৩২০
——————————- রমিত আজাদ

৩১৬।
বসন্তে ফুল গাঁথলো খোঁপায়, মাখলো রেণু সুন্দরী;
বাতাস ছড়ায় সুবাস ফুলের, রূপ ঢেলেছে হুরপরী!
মন মেতেছে বসন্ত বায়, শীত পালালো দেশ ছাড়ি,
আনন্দ আজ খেলছে ধরায়, ফুল্ল শোভায় মন কাড়ি!

—————————————- রমিত আজাদ
১৬ই ফেব্রুয়ারী, ২০২০ সাল

৩১৭।
লাল শাড়ি, লাল টিপ, মোতি মালা গলে;
মানিয়েছে এই বেশ, খোলা এলোচুলে!
চোখ তার কোন কথা বলে যায় ভুলে?
ধেয়ে উঠে ছেয়ে যায়, ফাল্গুনী ফুলে!

—————————————- রমিত আজাদ
১৬ই ফেব্রুয়ারী, ২০২০ সাল

৩১৮।
কেউ আঁকে ছবি তার, কেউ লেখে কবিতা,
কেউ সাধে সুর তার, কেউ সাজে মণিকা!
কেউ তারে খুঁজে ফেরে ফুল পাতা ঘাসে,
সেই শুধু প্রহেলিকা, নিজ মনে হাসে!

৩১৯।
কেমন করে তুমি হঠাৎ তুমি হলে বলো?
কোন পলকে তোমার মুখে উঠলো জ্বলে আলো?
তুমি কি আর তুমি ছিলে, আগের কোন কালে?
মনে হলো এই যে প্রথম তুমিই তুমি হলে!

৩২০।
এই পাপীরে ক্ষমা করো, মাফ করে দাও গুনা,
দৃষ্টি আমার আটকে গেলো, দেখে চাঁদের কণা!
অমন ধারা পড়লে শাড়ি, সাজলে রঙের নীড়ে;
কোন অধমের চোখ না যাবে, রূপ সাগরের তীরে?

——————————————————————-
রচনাতারিখ: ১৭ই ফেব্রুয়ারী, ২০২০ সাল
সময়: দুপুর ০২ টা ১৪ মিনিট

Rubai 316, 317, 318, 319, 320
———————————- Ramit Azad

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.