রুবাই ৩৯৬ থেকে ৪১০ পর্যন্ত

রুবাই ৩৯৬ থেকে ৪১০ পর্যন্ত

—————————————– রমিত আজাদ

৩৯৬।

ঘুম নেই চোখে, ঘুম নেই চোখে, ঘুম নেই চোখে;

নিদারুন শোকে! নিদারুন শোকে! নিদারুন শোকে!

হয়তো গিয়েছে পেরিয়ে বছর, দশক দশক;

তবুও মানেনা চোখ! তবুও যায়না শোক! তবুও যায়না শোক!

——————————— রমিত আজাদ

২৪শে জুন, ২০২০

৩৯৭।

দুর্বল মন প্রেম করোনা, মন দিওনা সাকীর ঘরে,

সাহস রেখে যাও এগিয়ে, সুরা পিও পেয়ালা ভরে।

সাকীর কটি আলিঙ্গনে নৃত্যসুধায় নাও জড়িয়ে,

সারা নিশি বীণার তানে সুরের মায়া যাও ছড়িয়ে।

———————————– রমিত আজাদ

০৩রা আগস্ট, ২০২০ সাল

৩৯৮।

কাননের সবটুকু রঙ ঠাই নিলো আজ বসার ঘরের চৌপায়ায়,

রঙ্গনের টুকটুকে লাল জুঁইয়ের হাতে হাত রেখেছে সখ্যতায়!

গোলাপও গা ঘেষেছে বিষম সাজে দোস্তি হবে ফুল মেলায়,

বনেদি ফুলদানীতে থোকায় থোকায় পাপড়ি মেলে কোন মায়ায়?

———————————– রমিত আজাদ

০১লা জুলাই, ২০২০ সাল

৩৯৯।

বন্ধু আমার সিন্ধু চেন? কেমন রোষে দেয় গর্জন,

এত জলের সমারোহ কার কাঁদনে এই অর্জন?

অশান্ত জল টলমলিয়ে আছড়ে পড়ে সিন্ধু তীরে,

রহস্য এক আছে ঘিরে সিন্ধু জলের অথৈ নীরে!

———————————– রমিত আজাদ

০৩রা আগস্ট, ২০২০ সাল

৪০০।

ঘুম নেই চোখে, ঘুম নেই চোখে, ঘুম নেই চোখে;

নিদারুন শোকে! নিদারুন শোকে! নিদারুন শোকে!

হয়তো গিয়েছে পেরিয়ে বছর, দশক দশক;

তবুও মানেনা চোখ! তবুও যায়না শোক! তবুও যায়না শোক!

——————————— রমিত আজাদ

২৪শে জুন, ২০২০

৪০১।

রঙ্গন ফুল অঙ্গনে যার, নির্মল তার মন;

ঝিকমিক তার মন-জোছনায়, সপ্ত তিথির ক্ষণ!

ঝরঝর ঝর মরমর মর শ্যামল পাতায় কম্পন,

কাব্য বীথি হয় উচাটন দেখে ফুলের অঙ্গন।

৪০২।

কাননের সবটুকু রঙ ঠাই নিলো আজ বসার ঘরের চৌপায়ায়,

রঙ্গনের টুকটুকে লাল জুঁইয়ের হাতে হাত রেখেছে সখ্যতায়!

গোলাপও গা ঘেষেছে বিষম সাজে দোস্তি হবে ফুল মেলায়,

বনেদি ফুলদানীতে থোকায় থোকায় পাপড়ি মেলে কোন মায়ায়?

———————————– রমিত আজাদ

০১লা জুলাই, ২০২০ সাল

৪০৩।

বন্ধু আমায় আর ডেকোনা তোমার পথের মাঝে!

তোমার কথা ভাবতে গিয়ে কান্না চেপে আসে!

দুইটি হৃদয় দুইটি পথেই থাকনা যেমন আছে,

দরকার কি দুই হৃদয়ের একটি পথে মিশে?

———————– রমিত আজাদ

০২রা জুলাই, ২০২০ সাল

৪০৪।

মেঘের যেমন রঙ রয়েছে, বদলে যাওয়া রঙ,

মনের তেমনি ঢং রয়েছে, উথাল পাথাল ঢং!

কখনো তায় শীতের কাঁপন, কখনো বা বাসন্তী ফুল,

মুক্ত কেশের কেতন ওড়ে, মন মহলা হয় যে আকুল!

৪০৫।

শেষ বিকেলের শুরু হলো, শেষ করতে চাইনা যে,

এমন রঙিন বিকেলটাকে শেষ করতে চাইবে কে?

মন ভুলালো, মন ভুলালো, প্রাণ দুলালো, প্রাণ দুলালো!

ডালিম ফুলের রঙ লালিমা, মেঘ পরীদের ঘর সাজালো!

—————————– রমিত আজাদ

৪ঠা জুলাই, ২০২০ সাল

৪০৬।

নীলপদ্ম সদ্য তোলা দীঘির জলের গভীর হতে,

কেই বা জানে কার হাতে আজ পদ্ম যাবে হৃদয় হতে!

পদ্ম হাতে কাঁপছে হৃদয়, যেমন কাঁপে পাপড়িগুলো,

হৃৎকম্পে শংকা কিসের? ডংকা বাজাও উড়িয়ে ধুলো!

———————————– রমিত আজাদ

১৯শে জুলাই, ২০২০ সাল

৪০৭।

নার্গিসফুল হ্রদের পাশে উঠলো ফুটে বনের ছায়ায়,

চন্দ্রালোকে দুলছে তরু, কাজল কালো আঁখির মায়ায়!

অমন আঁখির ফাঁদ পেতেছে, কোন সে গাঁয়ের মন রূপসী?

জোৎস্না রঙে মন লেপেছে, কার যে নায়ের হৃৎ সরসী?

৪০৮।

মেরেই যদি ফেলতে চাস তো চালা গুলি টিপেই ট্রিগার,

শর্ত আছে, গুলির ঘায়ে ছিঁড়তে হবে হৃদয় আমার।

আর কোথাও বিধলে গুলি, হৃদয়টাতো রয়েই যাবে!

অক্ষত ঐ হৃদয়টাতে তোর ছবিটা থেকেই যাবে!

———————————– রমিত আজাদ

০৩রা আগস্ট, ২০২০ সাল

৪০৯।

আকাশ-গাঙে বাজছে বীণা, সুর ছড়ালো বরষা,

মায়ার সুরে শ্রাবণ ঝরে, জল জমিনে হয় পরশা।

মাটির ঘ্রাণে জলের সুবাস, কেমন যেন মাখামাখি!

এই মিতালীর লক্ষ ফসল উঠবে ঘরে রাতারাতি।

———————————– রমিত আজাদ

০৩রা আগস্ট, ২০২০ সাল

৪১০।

শরৎ রাণী, তোমায় আমি, দেখতে পেলাম হ্রদের তীরে,

কিতাব হাতে আনমনা মন, হারিয়ে গেছো কিসের ভীড়ে?

জোৎস্নাও আজ হার মেনেছে, তোমার রূপের ঝলকানিতে,

এই নিশিতে উঠলো জোয়ার, আমার মনের ফুলদানিতে।

———————————– রমিত আজাদ

০৩রা আগস্ট, ২০২০ সাল


প্রকাশনা তারিখ: ৩রা আগষ্ট, ২০২০ সাল

সময়: দুপুর ০১টা ২৭ মিনিট

Painting collected from internet

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.