রুবাই ৪৩৬ – ৪৪০

রুবাই ৪৩৬ – ৪৪০
——————————– রমিত আজাদ

৪৩৬।
কোন সে প্রদীপ জ্বাললো আলো, উদাস অচীন পুরে?
আলোর টানে লাখ জ্বোনাকী আসছে উড়ে উড়ে।
জোৎস্না আজি ম্লান হয়েছে সেই প্রদীপের পাশে,
শাওন সাঁঝে জলের কাঁকন বাজছে শ্যামল ঘাসে।

——————————- রমিত আজাদ
০১লা জুলাই, ২০২১ সাল

৪৩৭।
হাতছানি দেয় সাঁঝের বাদল, বজ্রে বাজে বাঁশী;
বৃষ্টিনিনাদ বাজায় নিষাদ, ভোলায় মধুর হাসি!
কার পানে চায় সন্ধ্যাতারা, কার পথ চায় ফুলকুঁড়ি?
অস্তাচলের মেঘের ভেলায়, চলছে কোথায় শর্বরী?

৪৩৮।
একটি আঁখি কেশে ঢাকা, একটি আঁখি বেশ খোলা,
ফ্যাশন করে আছে বসে, পায়ের উপর পা তোলা।
হালফ্যাশনে নেই জুড়ি তার, গায়ের জামা বাহারি,
মৌনতা তার রূপ-মণিহার, মন কেড়েছে কাহারি?

৪৩৯।
কৃষ্ণ করলে বলো লীলা, আমরা করলে কিলা!
দু’জন মিলে কইলে কথা, চল সবারে বিলা!
রাজার দুলাল জলকেলিতে মাতলে বলো, “সুন্দর”
আমরা বইলে নদীর ঘাটে, ঝড় বয়ে দাও নিন্দার।

৪৪০।
রাতভর তাই বৃষ্টি হলে, জ্বালিয়ে রাখি বাতি,
সেও হয়তো নয়ন মেলে কাটিয়ে দেবে রাতি।
আমার ঘরের ভেজা হাওয়া, তার ঘরে কি যাবে?

আমার ভাঙা বুকের কথা, তার কানে কি দেবে?

রচনাতারিখ: ০১লা জুলাই, ২০২১ সাল
রচনাসময়: রাত ১১টা ৪১ মিনিট

Rubai 436-440
———————– Ramit Azad

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.