রুবাই ৪৬১-৪৬৫ (Rubai Ramit 461-465)

রুবাই ৪৬১-৪৬৫
———————— রমিত আজাদ

৪৬১।
মায়ের শাসন, বৌয়ের ভাষণ, তারই মাঝে তুর্কী নাচন!
বিবশ পুরুষ, কি নির্যাতন! রণাঙ্গনে শরীর পাতন!
এমনধারা চললে পরে, গড়তে হবে ঘোর আন্দোলন।
মুক্তিকামী পুরুষকূলের শপথ হবে ‘মন্ত্র সাধন!’

৪৬২।
বাসন ভাঙ্গো, কোসন ভাঙ্গো, রাগের মাথায় কঞ্চি ভাঙ্গো,
ভাঙ্গা-ভাঙ্গির এ সংসারে, জীবনটাকেও কঠিন রাঙো!
পুলছিরাতে দাঁড়িয়ে ভাবি; কোনটা ফটো, কোনটা ছবি?
মেজাজ মুডের না পেয়ে ঠিক, অবশেষে হলাম কবি!

৪৬৩।
রূপসীরা রূপ ছড়িয়ে জাল ফেলে যায় দীঘির জলে,
রূপের জালে ধরবে কুমার, করবে শিকার নানান ছলে!
রূপ সে তো না, মরিচিকা! কুমার কাঁদে ভুলের দুখে!
ভুলের শোকেই কাটুক জীবন, রূপসীরা রইবে সুখে।

৪৬৪।
এবার ঠিকই ত্যাগী হবো, গৃহ ছেড়ে বনেই রবো;
কি ভেবেছ, পারবো না তা? বলেই যাবে যখন যা তা?
ত্রিপিটকের পাঠ নিয়েছি, ভিক্ষু-যোগীর শ্লোক পড়েছি,
দেখো ঠিকই পূর্ণিমাতে, ছেড়ে যাবো গভীর রাতে।

৪৬৫।
রূপের আকর তুমি যেমন, রাগের কাঁকর তুমিই তেমন!
কথায় কথায় হুমকি দিয়ে, মুক করে দাও মূর্তি মতন।
মাঝে মাঝে হঠাৎ ভাবি, ফন্দি এটে রাখি দাবী।

মতলব সব তুলেই রাখি, যখন দেখি ঝড়ের ছবি!

রচনাতারিখ: ২৬শে জুলাই, ২০২১ সাল
রচনাসময়: রাত ১২ টা ০২ মিনিট

Rubai 461-465
————————- Ramit Azad

মন্তব্য করুন..

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.