হরিষে বিষাদ

হরিষে বিষাদ

হরিষে বিষাদ –সাকি বিল্লাহ্   আজ হরিষে বিষাদ মনে, কেন? যাতনা, কিসের এত বিষের পেয়ালা যেন; জীবন সায়াহ্নে এত কন্টাকীর্ণ পথ, যবে বিষাবনীল দেহভারে টানিছো সেই রথ । তোমার পথের পরে কন্টক বিছায়েছে কেহ, কোন সে হৃদয়হীনা তোমারে বঁধেছে প্রিয় মোহ । তাই হরিষে বিষাদ নামে বক্ষে, যখনই পড়ে মনে তাহারে এ অন্তরীক্ষে । মরুভূমির বক্ষে এসেছিলে হয়ে এক পসলা […]

অন্দর মহল

অন্দর মহল

অন্দর মহল –সাকি বিল্লাহ্ তোমার অন্দর মহলে ডেকে এনে, সর্বনাশ করেছো আমার, অন্তর অথবা অন্দর যা-ই বলো না কেন, একই মোহে আকৃষ্ট করেছো, এই রূপ মাধুর্যের ছলনায়; ডেকেছো গহীনে গভীরে.. বাঁকা ঠোঁটের চমৎকার হাসিতে, খুন হয়ে যাই বার বার, অতপর সেই ঠোঁটের স্পর্শেই হয় পূনর্জনম, রূপখানা কালের মহাস্রোতে হারালেও, থেকে যাবে তোমার বাঁকা হাসি ।।   এই যে ঘন কালো […]

সু-সন্তান

সু-সন্তান

সু-সন্তান –সাকি বিল্লাহ্   এমন সন্তান জন্ম দিও-গো মা-জননী, কাঁপিবে বিশ্ব সত্যসম্ভারে, লুটাবে পায়ে ধরণী । অজুত গুনিয়া এমন সন্তান, না হয় ঘরে ঘরে, তবু দিগ্বীজয়ে শুনি তারই জয় জয়কারে । সর্পিল জাত জন্ম দেয় বহু কিংবা কুক্করী, জন্ম দিয়া সাপের বংশ বিলাপে মর্মবিদারী ।   এমন শিশু গড়ে তোলো হে পিতা, অন্যায় রোধে দৃঢ় চিত্তে, কর্মে সদা সততা । […]

কমলা সুন্দরীর স্নান

কমলা সুন্দরীর স্নান

কমলা সুন্দরীর স্নান –সাকি বিল্লাহ্   সাঁতার না জানলে কন্যা, নাইমো না ঐ দরিয়ায়, দরিয়ার পানি চিকচিক করে, সূর্যের আলোর ঝলমলায় ।।   কন্যার বরণ কমলার মতন, রাগলে হয় মহাগ্নী, ও গো ময়না নাইমোনা জলে, এই রাগিনীর স্রোতিস্বিনী ।।   রন্ধন শেষে স্নানে এসে, পদ্মের ন্যায় ভাসো, গায়ে মাখো চন্দন-তুলসী, আর, আপন মনে হাসো ।।   দরিয়ার জল উজানে চলে, […]

তিতা কথাঃ পর্ব-১০ অভাবে চোর আর স্বভাবে চোর !!!

তিতা কথাঃ পর্ব-১০ অভাবে চোর আর স্বভাবে চোর !!!

— সাকি বিল্লাহ্   সকালে সংবাদপত্রটা হাতে নিলাম, না আমাদের দেশের না । জার্মানীর একটা পত্রিকা । শিরোনাম হচ্ছে “রাস্তায় গাড়ী দুর্ঘটনায় কুকুর নিহত” এবার আসি আমাদের দেশের পত্রিকাগুলোর শিরোনামে, “১১ ঘন্টায় রাজধানীতে দুই জোড়া খুন” “বুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও মাদকের ছোবল” “অপারেশন হিট ব্যাকঃ বিস্ফোরণে ছিন্নভিন্ন সাত লাশের চারটিই শিশুর” “পুরনো রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের অনাগ্রহ” “খাদ্যদ্রব্যের লাগাম ছাড়া দামে […]

জেগে উঠো হে বাঙ্গালী

জেগে উঠো হে বাঙ্গালী

-সাকি বিল্লাহ্   হে নির্বাসিত মন, অর্বাচিন বাঙ্গালী, জেগে উঠো আজ ঘোর অমানিষায় জ্বেলে দ্বীপালী । হেয় করো সকল কুণ্ঠা আর জরা যত, শক্তিতে হও আগুয়ান হটিয়ে হিংস্র পশু শত শত ।   কে বলে তুমি ধারক কোন বিশ্বাসের, বলো চীরদিন ধরনীর বুকে বীরসন্তান এই দেশের । হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ অথবা খ্রিস্টান, সকলে এক বাংলা বীরের জাত সন্তান । ধ্বংস […]

শুনতে চাই না

শুনতে চাই না

শুনতে চাই না আমি কবিতা আর গান, তোমার কণ্ঠে দেখতে চাই না চাঁদ আর হাসি তোমার মুখে তুমি নর পশুর চাইতেও অধম আমার মনে হচ্ছে তুমি একটা ভয়ঙ্কর নর পিশাচিনী তোমায় দেখতে চাই না ।   ¯পর্শ চাই না শিশির বিন্দু মাখা দূর্বা ঘাসের মত, তোমার হাতের, কারণ তোমার হাতের ¯পর্শে আমি বিষাক্ত তুমি বর্বর হায়েনা কিংবা নরমাংশী পাকিস্তানী সেনা […]

আজ তোমাকে শাড়ীতে দেখেছি

আজ তোমাকে শাড়ীতে দেখেছি

আজ তোমাকে শাড়ীতে দেখেছি, আর দহনে সিক্ত হয়ে নিজেই কিছুক্ষণ হেসেছি । হাতের চুড়ির শব্দে বা মিস্টি হাসির আড়াল, কিভাবে পারো লুকাতে তোমার শত কস্টের বেড়াজাল । ঠোঁটের রংয়ে, বাঁকা হাসি আর চুলের কারুকাজ, চোখের কাজলে মিশে একাকার সবখানি লাজ । সব ব্যাথা উপশম করে তোমার সুশ্রীবদনে, তাই জড়াব্যধিতে পথ্য পাথেয় শুধু সে মুখ দর্শনে । খোঁপাতে তাই গুজে দেই […]

একটি বটবৃক্ষের আত্মকাহিনী

একটি বটবৃক্ষের আত্মকাহিনী

নরেন্দ্র নারায়ণ যে জমিদার ছিলেন…. -হ্যাঁ তোমাকেই বলছি হে পথিক আমি একজন বটগাছ একটি বটগাছ নই, আমারও যে প্রাণ আছে আছে ভালোবাসার অধিকার শুধু আমি চলতে পারি না আর সব কিছুই করতে পারি তাই আমি একজন বটবৃক্ষ, “একটি নয়” ।   তুমি পথিক, কোথাও যাচ্ছ বুঝি ? খুব ক্লান্ত মনে হচ্ছে তোমাকে একটু জিরিয়ে নিতে পার আমার সুশীতল ছায়ায় এসো, […]

এপাড় ওপাড়

এপাড় ওপাড়

সাকি বিল্লাহ্   আমাকে একটু ওপাড়ে পাঠাতে পারবে, ওপাড়ে, যেখান থেকে কেউ কখনো না ফিরে, লম্বা ছুটি, নিরন্তর অবকাশ, ধ্র“ব সত্য, অদৃশ্য নীল আকাশ ।   মাঝি নিশ্চুপ, বৈঠা হাতে এপারে, তুমি বড়ই দুখী, যদি চাও চলো ওপাড়ে ।   হাতের প্রদীপ আমার নিভু নিভু করে, ক্ষণে, ঝিরি ঝিরি বাতাসে, আর শেষবিন্দু কেরোসিনে, সলতে পুড়ে পুড়ে শেষ হচ্ছে আমার, সময় […]

মন্ত্রজালে

মন্ত্রজালে

মন্ত্রজালে সাকি বিল্লাহ্ শ্যামনগরের রাজপুত্র মাহাতাপ সিং রাজকর্ম বাদ দিয়া বাউন্ডুলে কাটিত দিন । রাজ্য ও সিংহাসন নিয়া তাই রাজা প্রতাপ, দুঃশ্চিন্তায় ব্যথিত সারাদিন বিলাপ । নদীর ধারে বসিয়া ক্ষণকালে মাহাতাপ, মনোযোগে পশুপাখি মৎস্য হত্যায় মহাপাপ । এ কাজে তাহার বাধা হইল এক দরবেশ, কহিল বাছা, অকারনে কেন ধ্বংসের রেশ? রাজপুত্রকে কেহ প্রশ্নের ধৃস্টতায়, সাহস তাহার বড়ই চমক বরদাস্ত করে […]

কবিতা:::::::     নীলাচল

কবিতা::::::: নীলাচল

অনেক উপরে আমি, বান্দরবনের সুউচ্চ নীলাচল টিলায় নিচে বহমান নদীর মতো আকাঁবাকা হয়ে নেমে গেছে সরু র্কাপেটের উচু-নিচু রাস্তা। শহরের বুকে বড় বড় ইমারত কিংবা খুঁড়ে ঘরগুলোকে মনে হচ্ছে তরে তরে সাজানো ঠিক বাচ্চাদের খেলাঘর সৃষ্টি সেরা মানুষগুলোকে উপর থেকে দেখায় তখন পিঁপড়ার মতো। যতদুর চোখ যায়, বিস্থীর্ণ প্রান্তর জুড়ে সবুজের মিলন মেলা বাতাশের শীতল ঝাপটা আর মেঘের আলো-ছায়ার মুগ্ধতায় […]

ফাঁসি

ফাঁসি

——-সাকি বিল্লাহ্ কি কারন কি জানি কি হল মনের গহীনে অভিশম্পাত ঝরিল দূর মেঘের গর্জনে আত্মাহুতি দিল হৃদয় বিসর্জনে কেন এ ভোগান্তি কেন বিরহ বুকের আগুন মিটাল তাই আত্মাহুতি সহ রাতের বেলায়, নিঝুম রাতের বেলায় তাই কমলা করে তার জীবন উৎসর্গ কেন ? কেহ জানে নাই । কি কারন কেন ফাঁসিরে আসন দিলো কেহ জানে না তবে অভাগীর বিবেক মানিল […]

একজন এক’শ বছরের বুড়ো

একজন এক’শ বছরের বুড়ো

–সাকি বিল্লাহ্ আমি একজন এক’শ বছরের বুড়ো বুড়ো থুড় থুড়ো, হাতের কুঁচকানো শুকনো চামড়, ঝুলে আছে থুতনির ভাজে পড়া অসাড় । মস্তকের গুটি কয়েক চুলের উঁকি দেয়া, প্রান্তিক ভাগে আছে শেওলা ধরা ছাঁয়া । আমি দেখেছি শত পাখির উড়ে যাওয়া, দেখেছি শত বুনো হাঁসের জলকেলি খেওয়া; আমি বুড়ো এক’শ বছরের বুড়ো, চামড়া কুঁচকানো বুড়ো থুড়থুড়ো । রাতের অভিসারে গাছের সাথে […]